মাইক ভাড়া করে তৃণমূলের কাছে ক্ষমা চাচ্ছেন বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা!

প্রকাশ: 9 June, 2021 12:03 : PM

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের পতাকা ব্যাটারিচালিত অটোতে লাগিয়ে গ্রাম ঘুরলেন বিজেপি সমর্থকরা।

বিজেপিতে নাম লেখানোর জন্য মাইকে ক্ষমাও চাইলেন তারা। প্রায় ৩০-৩৫ জনের একটি দল কার্যত মিছিল করে মঙ্গলবার গণ ক্ষমাপ্রার্থনা করলেন। লাভপুরের বিপ্রুটিকুরি এলাকার এ ঘটনা নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজনীতিতে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

‘খুব ভুল করেছি, আর কখনও হবে না’— এ কথা বলে বীরভূমে তৃণমূলে যোগ দিতে চেয়ে মাইক নিয়ে প্রচারণায় নামেন বিজেপির ওই সমর্থকরা।

তবে বিজেপির অভিযোগ, পেশিশক্তির ভয় দেখিয়ে অনুব্রত ও তার সঙ্গীরা বিজেপিকর্মীদের দল ছাড়তে বাধ্য করছে। পাল্টা তৃণমূলের বক্তব্য— শুভবুদ্ধির উদয় হওয়ায় বিজেপি ছেড়ে দেওয়ার ধুম লেগেছে। তৃণমূল কাউকে জোর করেনি।

নির্বাচনের আগে, পরে বারবার অশান্ত হয়েছে নানুর ও লাভপুর। নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী অভিজিৎ সিংহের কাছে বিজেপি প্রার্থী বিশ্বজিৎ মণ্ডল পরাস্ত হওয়ার পর থেকে তাদের ওপর অত্যাচার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছিল বিজেপি।

অসংখ্য দলীয় কর্মী ঘরছাড়া বলেও দাবি করা হয় গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে। কিন্তু মঙ্গলবারের ঘটনা একেবারে অভূতপূর্ব। বিজেপিকর্মীরা অটোতে তৃণমূলের পতাকা লাগিয়ে ক্ষমা ভিক্ষা করলেন স্থানীয় চৌমাথা থেকে গ্রামের রাস্তায় রাস্তায়।

ঘোষণা করা হলো— ‘বিধানসভা ভোটের সময় রাজ্য সরকার ও পঞ্চায়েতের উন্নয়নমূলক কাজ সম্পর্কে মিথ্যা প্রচার করেছি। উত্তেজনার সৃষ্টি করেছি। মিথ্যা অপবাদ ও কুকীর্তির জন্য গ্রামবাসীর কাছে আমরা ক্ষমাপ্রার্থী। শপথ করছি— এমন ভুল ভবিষ্যতে কোনো দিন করব না। গ্রামবাসীর কাছে ভুল স্বীকার করছি। আমরা যাতে তৃণমূলে যোগ দিতে পারি, উন্নয়নে শামিল হতে পারি, তার আবেদন করছি বিধায়ক মহাশয়ের কাছে। মা মাটি মানুষ জিন্দাবাদ।’