সর্বশেষ: ইউপি নির্বাচনঃ বরিশালে সাংবাদিকদের মোটরসাইকেল ফেলে দিলো পুলিশ ইউপি নির্বাচনঃ মুলাদীর গাছুয়ায় জাতীয় পার্টির প্রার্থীরও ভোট বর্জন ইউপি নির্বাচনঃ বাবুগঞ্জের দেহেরগতিতে ব্যালট ছিনতাইয়ের চেষ্টা ইউপি নির্বাচনঃ হিজলা উপ‌জেলার মেমানিয়ায় দু-গ্রুপের সংঘর্ষ ইউপি নির্বাচনঃ গৌরনদীতে ভোটকেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণ, নিহত ১ ইউপি নির্বাচনঃ মুলদীর গাছুয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভোট বর্জন আফগানিস্তানে ইসলামি শাসনব্যবস্থার রূপরেখা দিল তালেবান সুপার হিরো বাবা, তোমাকে ভালোবাসি: মুশফিক এবার স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানায় পাল্টা অভিযোগ কাঞ্চনের! মাদক বিস্তারের পরিণাম জঙ্গিবাদের মতোই ভয়াবহ: জিএম কাদের

তরুণদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে অপো এফ১৭ প্রো

প্রকাশ: 18 December, 2020 12:18 : PM

এবার বাজারে এসেছে অপো এফ১৭ প্রো।  শক্তিশালী চিপসেটের এ স্মার্টফোনে রয়েছে ৬টি এআই পোর্ট্রেট ক্যামেরা, ভোক চার্জ ৪.০ সুবিধাসহ রকমারি ডিজাইন।
নান্দনিক ডিজাইনের এ মোবাইলসেটের ব্যাক প্যানেলটি চকচকে হলেও ম্যাট ফিনিশের কারণে এতে সহজে ফিঙ্গারপ্রিন্ট এঁটে থাকবে না।

বৃহস্পতিবার প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যম অপো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে এসব তথ্য।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২০২০ সালের সবচেয়ে স্লিক ফোন অপো এফ১৭ প্রো ইতোমধ্যে এর পারফরম্যান্স, ক্যামেরা ও নান্দনিকতার জন্যে তরুণদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। চমৎকার সব ফিচারের ফোনটি সারা দেশের প্রতিটি অপো স্টোর এবং ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে মাত্র ২৭ হাজার ৯৯০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

ফোনে ৪,০১৫ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে, তবুও আকার অনুসারে এর ওজন অনেক কম, মাত্র ১৬৪ গ্রাম।  পুরুত্বের দিক থেকে স্মার্টফোনটি মাত্র ৭.৪৮ মিলিমিটার, এবং এটি বছরের সবচেয়ে স্লিক স্মার্টফোন।  ফলে ফোনটি জিন্স কিংবা জ্যাকেটের পকেটে অথবা স্টাইলিশ ক্লাচে খুব সহজেই স্লাইড করে রাখা যাবে।  এতো পাতলা বডিতে মাদারবোর্ড, ক্যামেরা সেটআপ এবং একটি শক্তিশালী ব্যাটারিসহ সকল উপাদান ফিট করতে অপো অত্যাধুনিক অপটিমাইজেশনের ডিজাইন ব্যবহার করেছে। পাতলা হবার কারণে ব্যবহারকারীরা ফোনটি পকেটে রাখার ক্ষেত্রে বা যেকোনো রকমের ব্যবহারে স্বাচ্ছন্দ্য পাবেন।

তাছাড়া, বেজেল খুবই ছোট হওয়ায় এফ১৭ প্রো’র বিশাল ৬.৪৩ ইঞ্চি ডিস্প্লের স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও ৯০.৭ শতাংশ হওয়ায় খুব সহজেই এক হাতে এই আল্ট্রা-লাইটওয়েট ফোনটি ব্যবহার করা যায়। স্মার্টফোনটির এজ ২২০ ডিগ্রি গোলাকার, এতে করে ব্যবহারকারীরা যেকোনও কাজে ফোনোটি ব্যবহারে পাওয়া যাবে একটি প্রিমিয়াম অভিজ্ঞতা।
মিনি ডুয়াল-পাঞ্চহোলে ৩.৭মিমি ব্যাসের ক্যামেরাটি এ ইন্ডাস্ট্রির ক্ষুদ্রতম হওয়ায় যেকোনো কন্টেন্ট উপভোগে কিংবা গেমিং-ছাড়াও যেকোন ভিডিও কন্টেন্ট দেখায় সময় কোনো প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে না। এফএইচডি প্লাস সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লেতে প্রতিটি কন্টেন্টে মিলবে অনন্য ভিউইং এক্সপেরিয়েন্স। ফোনের ২২০ ডিগ্রী রাউন্ডেড এজ ডিসপ্লের যুগান্তকারী ডিজাইনে স্মার্টফোনটিকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলেছে। দুটি অনন্য চোখ ধাঁধানো রঙ – ম্যাজিক ব্লু এবং ম্যাট ব্ল্যাকের রিফ্লেক্টিভ ব্যাক প্যানেলে আলো বিভিন্নভাবে বিক্ষিপ্ত হয়ে অপরূপ এক ছটা তৈরি করে, যা অন্যান্য ফোনের মাঝে এফ১৭ প্রো-কে আলাদা নান্দনিকতা দেয়।

অপো এফ১৭ প্রো-তে আছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের মূল সেন্সর ও ডুয়াল পাঞ্চ হোলে ফ্রন্ট ক্যামেরাসহ ৬টি এআই ক্যামেরা।

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের ফলে অপো এফ সেভেন্টিন প্রো-তে স্মার্টফোন ফটোগ্রাফি আরো সহজ হয়েছে।  ডুয়াল লেন্স বোকেহ এবং এআই কালার পোর্ট্রেটের ব্যবহারে এফ সেভেন্টিন প্রো’র ক্যামেরায় যেকোনো ব্যাকগ্রাউন্ডে অসাধারণ পোর্ট্রেট তোলা যায়।  তাছাড়া, প্রতিটি ছবিতে দিবে চমৎকার ডিটেইলস দিতে আছে এআই সুপার ক্লিয়ার পোর্ট্রেট এবং এআই বিউটিফিকেশন ২.০।

অল্প আলো কিংবা রাতের অনবদ্য ছবি নিশ্চিত করতে  এতে ব্যবহৃত হয়েছে উন্নত লো লাইট এইচডিআর অ্যালগরিদম। এর সাথে আছে এআই নাইট ফ্লেয়ার পোর্ট্রেট এবং এআই সুপার নাইট পোর্ট্রেট মোড।  তাছাড়া স্থিতিশীল এবং পরিষ্কার ভিডিও’র জন্যে আছে আল্ট্রা-স্টেডি ভিডিও মোড।  প্রোফেশনাল মোডে ইচ্ছেমতো শাটার স্পিড, আইএসও বদলে স্লো-শাটারে নান্দনিক ছবি তোলা যাবে। এসবের পাশাপাশি এই ফোনে আছে প্যানোরামা, টাইম্প-ল্যাপ্স ও স্লো-মোশন।

অপো এফ১৭ সেভেন্টিন প্রো-তে আছে ৩০ ওয়াটের ভোক ফ্ল্যাশ চার্জ ৪.০, যার ব্যবহারে ৪,০১৫ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি মাত্র ৫৩ মিনিটে ১০০ শতাংশ চার্জ করা যায়। তাছাড়া, উন্নত ব্যাটারি অপটিমাইজেশনে মাত্র ৫ মিনিট চার্জে মিলবে ৪ ঘন্টা টক টাইম, অথবা ১.৭ ঘন্টা ইউটিউব দেখা, কিংবা পাবজিতে ১টি গেমের প্লেটাইম, অথবা ১.৯ ঘন্টা ইনস্টাগ্রাম ব্রাউজিং এর সুবিধা। আর ব্যাটারির শেষ ৫ শতাংশ চার্জ দিয়ে ৭০ মিনিট কল, ৪৯ মিনিট এসএমএস করার সুবিধা ছাড়াও ৩৫ মিনিট উবার ব্যবহার করা যাবে।

অপো এফ১৭ প্রো-তে আছে অক্টাকোর সিপিইউ, ৮ গিগাবাইট এলপিডিডিআর৪এক্স র‍্যাম, যা ২.২ গিগাহার্টজ পর্যন্ত গতিতে কাজ করতে পারে। এর ফলে হাই গ্রাফিক্সের অনলাইন গেমও কোন দৃশ্যমান ল্যাগছাড়াই খেলা যাবে। ফোনটিতে ১২৮ গিগাবাইট ইউএফএস ইন্টারনাল স্টোরেজের পাশাপাশি এক্সটার্নাল মেমরি কার্ড ব্যবহারেরও সুবিধা আছে। ফোনের ব্যবহার আরো স্মুথ করতে এতে ব্যবহার করা হয়েছে অপোর নিজস্ব ইউজার ইন্টারফেস – কালারওএস ৭.২। উদ্ভাবনী এয়ার জেসচার দিয়ে ব্যবহারকারীরা স্মার্টফোন স্পর্শ না করেই স্ক্রিনের ২০-৫০ সেন্টিমিটার ওপর থেকে কল ধরতে পারবেন।