আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

প্রকাশ: 3 March, 2021 9:03 : PM

বরিশাল আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে গন ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারী কোতোয়ালি মডেল থানায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলায় নগরীর পশ্চিম বগুড়া রোডস্থ আল আমিন মসজিদের পূর্ব পাসস্থ আবুল কালাম আজাদের সাথে তার সহযোগী কাশিপুর গনপাড়া এলাকার মৃত্যু জোনাব আলী হাওলাদারের ছেলে সোহাগ হাওলাদার, রহম আলী জমিদারের ছেলে মিজান জমিদার ও রায়পাশা কড়াপুর এলাকার সাত্তার কারিগরের ছেলে নিজাম কারিগরকে অভিযুক্ত করা হয়।

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগে ধর্ষিতা বলেন, আবুল কালাম আজাদের সাথে তার জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। গত ১৭ ফেব্রুয়ারী রাত সাড়ে ৭ টায় অভিযুক্ত সোহাগ তাকে তার কাগজ পত্র বুঝে নেয়ার জন্য আল আমিন মসজিদের পাশে আজাদ ম্যানসন নামে আবুল কালাম আজাদের ল চেম্বারে যেতে খবর দেয় । বাদীনি রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সেখানে গিয়ে অন্যান্য অভিযুক্তদের দেখতে পায়। অভিযুক্ত সোহাগ তাকে এককাপ রং চা দেয়। তিনি রং চা খেয়ে মাথা ঘুরে অচেতন হয়ে পড়ে। এরপর তার কোন হুশ ছিলো না। ১৮ ফেব্রুয়ারী সকাল ৬ টার দিকে ১৮ নং ওয়ার্ডস্থ কাঞ্চন পার্কের সামনে থেকে তার স্বামী ও ভাশুর তাকে উদ্ধার করে র‍্যাব ৮ এর অফিসে নিয়ে যায়। সেখান থেকে বিমানবন্দর থানায় নিয়ে যায়। তার স্বামী ও তার স্বজনরা তাকে চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি শাখায় ভর্তি কয়ায়। ১৮ ফেব্রুয়ারী থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত চিকিৎসা নিয়ে স্বাভাবিক হয়ে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শ কাতর স্থানে ক্ষত চিহ্ন দেখতে পায়। তখন তিনি বুঝতে পারেন অভিযুক্তরা তাকে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে গনধর্ষন করে ভোরে কাঞ্চন পার্কে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এধরণের অভিযোগ দিয়ে মামলা দায়ের হলে থানা পুলিশ মামলার তদন্ত কার্যক্রম সহ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে বলে জানায় থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত আবুল কালাম আজাদ বরিশাল আদালতের আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপি নেতা বলে ধর্ষিতার পরিবার নিশ্চিত করেন।