যুবা ক্যাম্পে করোনা আতঙ্ক

প্রকাশ: 15 October, 2020 8:25 : PM

নব গঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ দল নিয়ে গত ০১ অক্টোবর বিকেএসপিতে চার সপ্তাহের জন্য শুরু হয়েছিল অনুশীলন ক্যাম্প। তবে ক্যম্পের মাঝপথে হানা দিয়েছে করোনা।

দুই একজন ক্রিকেটারের মাঝে দেখা দিয়েছে করোনা উপসর্গ । তাই ক্যাম্প দুই দিনের জন্য বন্ধ করা হয়েছে। যার কারণে ক্যাম্পের মেয়াদ কমিয়ে তিন সপ্তাহ করা হতে পারে।

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) গেম ডেভেলপমেন্টের ম্যানেজার আবু ইমাম মোহাম্মদ কায়সার। তিনি জানিয়েছেন, ঠিক করোনা নয় তবে করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়ায় সতর্কতার জন্য এটা করা হচ্ছে। পুরো দলের আবার করোনা পরীক্ষা করা হবে।

কায়সার বলেন, ‘করোনার জন্য ঠিক বলব না, আমাদের দুইদিন অনুশীলন বন্ধ ছিল। বুধবার ও বৃহস্পতিবার,  দুইদিন অনুশীলন বন্ধ রেখেছি। শুক্রবার তো আমদের বন্ধ থাকে। আরও একটা বিষয় হলো, করোনা ঠিক বলবো না, দুই একজন ক্রিকেটারে মাঝে উপসর্গ দেখেছি, যারা যারা ওদের সংস্পর্শে ছিল…। অনেক ক্রিকেটার হাঁচি-কাশি দিচ্ছে। ওদেরকে আমরা কিছুদিনের জন্য সরিয়ে রেখেছি।  আর আমরা সবার করোনা টেস্ট আবার অনুশীলন শুরু করবো। আমরা সতর্কতার অংশ হিসেবে অনুশীলনটা বন্ধ রেখেছি। ‘

তিনি আরও বলেন, ‘যে দুই একজনের উপসর্গ দেখা দিয়েছে তাদেরকে আইসোলেটেড করে রেখেছি। ওদের রুমমেটকেও আইসোলেটেড করে রেখেছি। সর্তকতার অংশ হিসেবে বাকিদেরও দেখতে চাচ্ছি। সাধারণত আমরা যেটা করি, যারা সাসপেক্টেড তারা না, সাপোরটেড যারা থাকে, যারা ওখানে কাজ করছে সবাইকেই এর আওতায় নিয়ে আসি। শনিবার অথবা রোববার থেকে আবার অনুশীলন শুরু করবো। যদি দরকার হয় আরও একদিন বন্ধ বাড়াব। ‘

চলতি বছর অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ হওয়ার কথা থাকলেও তা পিছিয়ে ২০২১ সালে পিছিয়ে নেওয়া হয়েছে। তাই অনুর্ধ্ব-১৯ দলের চলমান ক্যাম্প চার সপ্তাহের পরিবর্তে কমিয়ে তিন সপ্তাহ করা পরিকল্পনা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা চিন্তা করছি যেহেতু এশিয়া কাপটা পিছিয়ে গেছে… তো আমাদের ক্যাম্পটা হওয়ার কথা ছিল ৪ সপ্তাহের। আমরা এটার সময়টা কমাব। হয়তো তিন সপ্তাহ করে ট্রেনিংটা শেষ করবো, এটা আমাদের পরিকল্পনার মধ্যে আছে। আমরা পরে আপনাদেরকে জানিয়ে দেব। ‘