বাড়ছে পাসওয়ার্ড ফাঁসের আশঙ্কা

প্রকাশ: 17 September, 2020 3:53 : PM

প্রযুক্তির অগ্রগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব, সেইসঙ্গে অনলাইনে সাধারণের অন্তর্ভুক্তি বেড়েছে বহুগুণ। শিক্ষা, চিকিৎসা এমনকি বিনোদনসহ যে কোনো প্রয়োজনে মানুষ এখন ঘরে বসেই প্রযুক্তির মাধ্যমে সেবা গ্রহণ করতে আগ্রহী। অনলাইনে নানা কাজের জন্য বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট খুলতে হয় আর সেখানে অ্যাকটিভ করতে হয় পাসওয়ার্ড।

অনলাইন অ্যাকাউন্ট ও তথ্য সুরক্ষার জন্য পাসওয়ার্ড খুব গুরুত্বপূর্ণ। সাইবার আন্ডারওয়ার্ল্ডের অন্যতম ব্যবসা পাসওয়ার্ড হাতিয়ে নেয়া ও তা বিক্রি করা। দিন দিন সাইবার সন্ত্রাসীরা বেশি সক্রিয় হয়ে উঠছে। তাই পাসওয়ার্ড ফাঁসের ঝুঁকি আরও বাড়ছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এক প্রতিবেদনে সাইবার সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল শ্যাডো বলছে, প্রতি ব্যক্তি কমপক্ষে গড়ে ১৯১ সার্ভিস ব্যবহার করেন, যাদের আবার সেগুলোয় থাকে পাসওয়ার্ড ও গোপনীয় অনেক কিছু। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, দিনকে দিন সাইবার সন্ত্রাসীরা বেশি সক্রিয় হয়ে উঠছে। ফলে মানুষের পাসওয়ার্ড, ইউজার নেম, অন্যান্য গোপনীয় বিষয় ঝুঁকির মুখে পড়ছে। সাইবারে তথ্য হাতিয়ে নেয়ার ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

২০১৮ সাল থেকে অন্তত ১৫০০ কোটি গোপনীয় বিষয় ফাঁস হয়েছে; যা আগের চেয়ে অন্তত ৩০০ শতাংশ বেশি। আর এগুলো অন্তত এক লাখ উৎস থেকে ফাঁসের ঘটনা ঘটেছে।

বিশেষজ্ঞরা স্মরণ করিয়ে দিচ্ছেন, একই পাসওয়ার্ড একাধিক অ্যাকাউন্টে ব্যবহার করার কারণে এ ফাঁসের ঘটনা অহরহ ঘটে। ডিজিটাল শ্যাডোর স্ট্র্যাটেজির ভাইস প্রেসিডেন্ট রিক হল্যান্ড বলেন, এর অর্থ আপনি যদি নতুন কোনো অ্যাকাউন্ট করেন তাহলে সেখানে নতুন পাসওয়ার্ড ক্রিয়েট করতে হবে, এতে ঝুঁকি কমবে।

ডিজিটাল শ্যাডো বলছে, তারা সাইবার পরিসরে এমন অন্তত দুই মিলিয়ন অ্যাকাউন্টের ই-মেইল পেয়েছেন; যেগুলোয় বিভিন্ন ইনভয়েস বা পেমেন্ট করা হয়েছে। সেসব তথ্যই হাতিয়ে নিয়েছে সাইবার দুর্বৃত্তরা।

সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাইবার জগতে হামলার ঝুঁকি সব সময়ই থাকবে। কারণ, নিরাপত্তা ব্যবস্থার উন্নতির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হ্যাকাররা তাদের হামলার অস্ত্রও উন্নত করছে। হামলা থেকে মুক্ত থাকা জটিল কিছু নয়। প্রতিনিয়ত সতর্ক ও সচেতন থাকাই হামলা প্রতিরোধের সবচেয়ে বড় উপায়।