মৃত্যুর ১২৯ বছর পর বিদ্যাসাগরের সমাধিতে স্মৃতিফলক

প্রকাশ: 29 July, 2020 3:44 : PM

ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মৃত্যু হয় ১৮৯১ সালের ২৯ জুলাই।তার মরদেহের সৎকার হয়েছিল কলকাতার নিমতলা ঘাটে।

কিন্তু মৃত্যুর এত বছর পরও সেই সমাধিস্থলে বসানো হয়নি তার কোনো স্মৃতিফলক। অবশেষে মৃত্যুর ১২৯ বছর পর বসানো হলো। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

তার মৃত্যুবার্ষিকীর ঠিক পরের দিন, ৩০ জুলাই নিমতলা শ্মশানঘাটে উদ্বোধন হবে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের স্মৃতিফলক। ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন বা ভারতসভার উদ্যোগে কলকাতা পৌরসভার সহযোগিতায় বিদ্যাসাগরের ওই স্মৃতিফলক বসেছে নিমতলায়, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিফলকের ঠিক উল্টো দিকে।

যার জীবন ও কাজকর্মের অধিকাংশটাই কলকাতাকে কেন্দ্র করে। সেই বিদ্যাসাগরের সমাধিস্থলে কেন এত দিন কোনো স্মৃতিফলক ছিল না, সেই প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

বিদ্যাসাগরের ভক্ত চিকিৎসক শঙ্কর নাথ বলেন, ঢাকঢোল পিটিয়ে বিদ্যাসাগরের ২০০তম জন্মবার্ষিকী পালন হলো শহরে।

কিন্তু নিমতলায় তার একটা স্মৃতিফলক বসানোর কথা কারও মনে হয়নি। অবশেষে সেখানে রবীন্দ্রনাথের স্মৃতিফলকের উল্টো দিকে বিদ্যাসাগরের স্মৃতিফলক বসায় আমরা খুশি।

নিমতলাঘাটে রবীন্দ্রনাথের স্মৃতিফলক একটি দর্শনীয় বস্তু। এবার তার সঙ্গে বিদ্যাসাগরের স্মৃতিফলকও যুক্ত হয়ে গেল।

ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি সুস্বাগত বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ১৮৭৬ সালে সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে তৈরি হয় এই অ্যাসোসিয়েশন।

এর সদস্য ছিলেন স্বয়ং বিদ্যাসাগর মশাইও। আমরা অনেক দিন আগেই নিমতলাঘাটে বিদ্যাসাগরের স্মৃতিফলক বসাতে উদ্যোগ নিয়েছিলাম। শেষ পর্যন্ত কলকাতা পৌরসভা সেখানে জায়গা দেয়ায় আমরা কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।